শনিবার, ০৪ জুলাই ২০২০, ০৪:২২ পূর্বাহ্ন

আখাউড়া কুড়িপাইকা গ্রামে গাছের সাথে বেঁধে যুবক নির্যাতন

 
আখাউড়া প্রতিনিধি
 আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়ন কুড়িপাইকা গ্রামে আজ সোমবার সকালে নয়ন মিয়া (৩২) নামের এক যুবককে গাছে সাথে বেঁধে নির্যাতন করা হয়েছে বলে স্থানীয় সূত্রে অভিযোগ পাওয়া গেছে। আহত ওই যুবক বর্তমানে আখাউড়া সদর হাসপাতালে চিৎকিসা শেষে আখাউড়া থানায় আছেন। এ ঘটনায় নয়নের পিতা মো:সহিদ মিয়া থানায় অভিযোগ করেছেন আসামী এখনো গ্রেপ্তার হয়নি। আখাউড়া উপজেলার কুড়িপাইকা গ্রামের ঘটনা পরিদর্শন করে সাংবাদিকরা এলাকার লোকজদের সূত্রে জানা গেছে, কিছুদিন পূর্বে কুড়িপাইকা গ্রামের মাদক সম্রাট কাপ্তান মাদক সহ গ্রেফতার হন। এলাকাবাসী দাবি কাপ্তানে লোকজন বলাবলি করছে আহত নয়ন কপ্তান গ্রেফার করার পেছনে তার হাত রহিয়াছে বলে তার জানান। কাপ্তানের গ্রেপ্তারী কে কেন্দ্র করে নয়নের প্রতি তাদের আক্রোশ রহিয়াছে পূর্বে থেকে। কাপ্তান যদিও মাদকের মামলায় জেলে রয়েছেন কিন্তু তার দলবল থেমে নেই মাদককারবার সহ সমাজের বিভিন্ন অপর্কম ও সন্ত্রাসি হামলা থেকে, এর কবলেই রশি দিয়ে বাঁধা পড়ল নয়ন। খবর নিয়ে জানাযায় নয়নের বাড়ী ব্রাক্ষনবাড়ীয়া সদর উপজেলার সুহিলপুর গ্রামের মো:সহিদ মিয়ার ছেলে আহত নয়ন। আহত নয়ন মিয়া কুড়িপাইকা গ্রামে তাহার আত্মীয় বাড়ীতে সে বেড়াতে আসলে, কাপ্তানের সন্ত্রাসী বাহিনী এলাকায় নয়ন কে দেখে তার লোকজন দাওয়া করে তাকে ধরে প্রথমে গাছের সাথে বেধেঁ মধ্যেযোগি কায়দায় মারধর করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। পরে এলাকার সূত্রে হামলাকারীদের পরিচয় জানা গেছে তারা হলেন ১.আশিক ২. নাইম. পিতা মো: তিতু মিয়া ৩. সিয়াম পিতা মো:কাপ্তান মিয়া ৪. জিদান ৫.বাবু মিয়া পিতা মো:রমজান মিয়া ৬.নান্টু ৭. কালু মিয়া পিতা মো:জমসেদ মিয়া ৮.নজু মিয়া ৯. কায়কোবাদ ১০. কাউছার পিতা মো: আঃ আাজিজ তারা সবাই কুড়িপাইকা গ্রামের বাসিন্দাএলাকার লোকজন এমন বর্বরতা দেখে থানায় খবর দেন খবরপেয়ে আখাউড়া থানায় এস আই নিতাই ঘটনাস্থল থেকে তাকে উদ্ধার করেন। মোঠফোনে যোগাযোগ করা হলে আখাউড়া থানার এস আই নিতাই বলেন ঘটনাস্থল আমি পৌঁছালে আমি দেখি নয়ন নামে ছেলেটি মাটিতে লুটিয়ে পড়ে আছে, এলাকার লোকজদের তাকে কে মেরেছে প্রশ্ন করলে কেউ সঠিক তথ্য দিতে পারেননি তিনি আরো বলেন সঠিক তথ্য পেলে সন্ত্রাসী বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্তা নেওয়া হবে। আরো পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে আহত নয়ন আখাউড়া থানার একজন নিয়মিত মামলার ও গ্রেপ্তারি পরোয়ানার আাসামী ।
 


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *