বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৬:২৩ পূর্বাহ্ন

কাঁদা ছোঁড়া-ছুড়ি

ব্যাপক হারে ছড়িয়ে পড়া করনাভাইরাসকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা WHO এর আগেই মহামারী বলেছে । ২০১৯ এর ডিসেম্বর মাসে চীনের উহান প্রদেশে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতি এ ভাইরাস ছড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র, এমনিটি দাবী করছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র লিজিয়ান ঝাও। এ মন্তব্যের পক্ষে সংবাদ প্রকাশ করেছে বিশ্বের অনেক গণমাধ্যম। নিজের টুইটার একাউন্ট থেকে তিনি বার বার এ সংক্রান্ত পোষ্ট দেন।
পরে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থিত চীনা দূতাবাসকে ডেকে পাঠানো হয়েছে।
পৃথিবীতে এর আগে যতগুলো মহামারি’র মতো ঘটনা ঘটে গেছে তার প্রায় সবগুলোর জন্য কেউ না কেউ দায়ী বলে এক দল আরেক দলের নামে অভিযোগ তুলেছে।


প্লে­গের কারণ ছিল ইহুদিরা।

১৪ শতকে ইউরোপে প্লে­গ ছড়িয়ে পড়ে। কারো জানা ছিল না কোথা থেকে এর উৎপত্তি। একটা সময়ে গুজব ছড়িয়ে পড়ল যে ইহুদিরা পরিকল্পিতভাবে এই রোগ ছড়িয়েছে৷ প্লে­গের পেছনে আছে ইহুদিরাই; এমন বিশ্বাস থেকে বিভিন্ন জায়গায় তাদের উপর নির্যাতন শুরু হয়৷ জোরপূর্বক উচ্ছেদও করা হয় অনেককে।

এইডস ছড়িয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।

১৯৮০-র দশকে যুক্তরাষ্ট্রে এইডস ছড়িয়ে পড়ে৷ পরবর্তীতে ১৯৮৩ সালে এ নিয়ে গুজব ছড়াতে শুরু করে সোভিয়েত গোয়েন্দা বাহিনী কেজিবি। বলা হয় ফোর্ট ড্রেট্রিক-এ জীবাণু অস্ত্র হিসেবে মার্কিনিরা এইচআইভি উদ্ভাবন করেছিল, যা পরবর্তীতে প্রয়োগ করা হয় বন্দী, সংখ্যালঘু আদিবাসী সম্প্রদায় এবং সমকামীদের উপর। এই ষড়যন্ত্র তত্ত্বটি আজও জনপ্রিয়।

নব্বইর দশকে এইডস অনকেটা নয়িন্ত্রণে আসতে শুরু করে। কিন্তু এ সময় আফ্রিকায় নতুন করে ইবোলা ছড়িয়ে পড়ে। ইবোলার দায়মুক্তি দেয় যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটিন। যুক্তরাষ্ট্র এইডস ছড়য়িেেছ এমন ষড়যন্ত্র তাত্ত্বকিরা এবার দাবি করল ইবোলার জন্যও যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রিটেন দায়ী৷ সঙ্গে অবশ্য ব্রিটেনকেও জড়ানো হলো।

২০১৯ সালে রিপাবলিকান কংগ্রেসম্যান ক্রিস স্মিথ দাবি ১৯৫০ থেকে ১৯৭৫ সালের মধ্যে করা করা হয় পেন্টাগন জীবানু অস্ত্র প্রকল্প চালিয়েছিল। এঁটেল পোকাসহ বিভিন্ন কীটের মাধ্যমে এ জীবানু গুলো বহন করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *